1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. smds69@gmail.com : কারেন্ট নিউজ : কারেন্ট নিউজ
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ১১:৪৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
রামগতিতে দুঃশ্চিন্তাগ্রস্থ কৃষকের ধান কেটে দিয়েছে ছাত্রলীগ  শাল্লায় সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনায় লক্ষ্মীপুরে বিক্ষোভ যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধুকে নির্যাতনের অভিযোগ ‘প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যার্থ হলে ভবিষ্যতে নির্বাচনে আসব না’ – রায়পুরে মেয়র প্রার্থী রুবেল ভাট রায়পুরের উন্নয়নের স্বার্থে নৌকায় ভোট দিন – মেয়র প্রার্থী রুবেল ভাট ‘রায়পুরে দলীয় প্রার্থী বিজয়ী করতে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে পৌর আওয়ামী লীগ’-কাজী বাক্কি বিল্লাহ্ লক্ষ্মীপুরে বিএনপি’র সদস্য পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন ফয়েজ ভূঁইয়া রায়পুরে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা লিটন’র কম্বল বিতরণ মহা পবিত্র বিশ্ব উরস শরীফ ২০২১ ; রায়পুরে দাওয়াতী র‌্যালী- কর্মী সভা রায়পুরে ক্রিকেট খেলায় বিতর্ক ; কিশোর’কে পিটিয়ে আহত

শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের ৭২ ঘন্টার নতুন কর্মসূচি

  • আপডেট করা হয়েছে সোমবার, ২০ জুলাই, ২০২০
  • ৫৯২ বার পড়া হয়েছে

সুকান্ত মজুমদারঃ (২০ জুলাই ২০২০),

প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের আইনজীবী হিসেবে ঘোষণা দিয়ে গেজেট প্রকাশের দাবিতে গতকাল রোববার (১৯ জুলাই) বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে মহাসমাবেশ করছেন শিক্ষানবিশ আইনজীবীরা। এতে দেশের বিভিন্ন বার থেকে আগত সহস্রাধিক শিক্ষানবিশ অংশ নেয় । সোমবার (২০ জুলাই) সকাল ১০ টা থেকে ৭২ ঘন্টার আল্টিমেটামে নতুন কর্মসূচি ঘোষনা করা হয়। বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে দাবি আদায় না হলে আরো কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারী দেন বক্তারা।

এ সময় বিভিন্ন বারের পক্ষে প্রতিনিধিগণ ছাড়াও সমন্বয়কারীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এ কে মাহমুদ, সুমনা আক্তার লিলি, শেখ ফজলে রাব্বি স্বরন, শেখ আবুল হাসনাত বুলবুল, আইনুল ইসলাম বিশাল, উত্তম তারন, প্রমূখ।

উল্লেখ্য, গত ৭ জুলাই থেকে দাবি আদায়ে আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করে চলেছেন শিক্ষানবিশ আইনজীবীরা।

জানা যায়, দীর্ঘ পাঁচ বছরে একটি মাত্র এনরোলমেন্ট পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়ায় এবং বর্তমান করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতার কারণে শিক্ষানবিশ আইনজীবীরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। বর্তমানে ১২ হাজার ৮৪৮ জন প্রিলিমিনারি উত্তীর্ণ হয়ে লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য অপেক্ষায় আছেন। এছাড়াও ৫০ হাজারেরও বেশি শিক্ষানবিশ আইনজীবী পরবর্তী প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার জন্য অপেক্ষায় আছেন।

গত ৬ জুন শিক্ষানবিশ আইনজীবীরা ২০১৭ ও ২০২০ সালে এমসিকিউ উত্তীর্ণদের লিখিত ও ভাইভা পরীক্ষা গ্রহণ না করে সনদ প্রদানের জন্য বাংলাদেশ বার কাউন্সিল ও আইন মন্ত্রণালয়ে স্মারকলিপি দেয়। গত ৯ জুন দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রেরণ করে।

বক্তারা আরো বলেন, বার কাউন্সিলের বর্তমান কমিটি যেহেতু এখন পর্যন্ত কোনো এনরোলমেন্ট পরীক্ষা পুরোপুরি সম্পন্ন করতে পারেনি এবং বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে লিখিত পরীক্ষা অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য অনিশ্চিত সেহেতু ২০১৭ ও ২০২০ সালে প্রিলিমিনারি উত্তীর্ণদের লিখিত ও ভাইভা মওকুফ করে গেজেট প্রকাশ করে ২০২০ সালেই সনদ প্রদান করা হোক। মুজিব শতবর্ষ থেকেই আপিল বিভাগের রায় কার্যকর করা হোক।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন